• শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
মহেশপুরে অমর ২১শে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন জহির রায়হান থিয়েটারের ৩০ বছর পূর্তি আলোচনা সভা, ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠিত সাপাহারে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা-অনুষ্ঠিত কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোন কর্তৃক চোরাকারবারি আটক সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে দিনব্যাপী কর্মসূচি পালন শেরপুরে চাঁদা না পেয়ে মারধর অপহরণ থানায় মামলা কাজিপুরে ৮ টি গাঁজার গাছসহ এক কারবারী গ্রেপ্তার উল্লাপাড়ার মওলানা আব্দুর রশিদ তর্কবাগিশ উচ্চ বিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কাজিপুরে সোনামুখীতে এম মনসুর আলী স্মৃতি ভলিবলের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত রায়গঞ্জের পাঙ্গাসীতে অসহায় ও দুঃস্থ পরিবারের মধ্যে চাউল বিতরন

সারিয়াকান্দিতে সিলগালা করা গুদামের জব্দকৃত ১১২৪ বস্তা চাল উধাও, থানায় মামলা

রিপোর্টারঃ / ২১৭ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত হয়েছেঃ শনিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২২

জাহাঙ্গীর আলম মামুন- সারিয়াকান্দি (বগুড়া) প্রতিনিধি :

বগুড়া সারিয়াকান্দিতে জব্দকৃত ১১৩০ বস্তা চালসহ সিলগালা করা গুদামের চালের মধ্যে ১১২৪ বস্তা চাল উধাও হয়েছে । উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক দেওয়ান মোঃ আতিকুর রহমান এ ঘটনায় সারিয়াকান্দি থানায় অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। সিলগালা করা গুদামের চাল কিভাবে উধাও হলো তা নিয়ে জনমনে নানা ধরনের প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে ।

মামলা সূএে জানা যায়, গত ৩০ নভেম্বর বগুড়া সারিয়াকান্দি পৌর এলাকার বাগবেড় গ্রামের শাহিন আলমের চালের গুদামে অভিযান পরিচালনা করেন বগুড়া জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জান্নাতুল নাইম। কৃষি বিপনন নিবন্ধন এবং ক্রয় বিক্রয় রশিদ না থাকায় অভিযান শেষে ঘটনাস্থলে শাহিন আলমের নিকট থেকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। পরে ১ হাজার ১৩০ বস্তা চালসহ উক্ত গুদাম ভ্রাম্যমান আদালত থেকে সিলগালা করে দেয়া হয়। বিষয়টি দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য গত ৪ ডিসেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে আবেদন করেন উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক । এর অনুলিপি জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়েও প্রেরণ করা হয় । এরপর গত বৃহস্পতিবার বিকালে উক্ত গুদামে উপস্থিত হয়ে সিলগালা খোলেন সারিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেজাউল করিম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আতিকুর রহমান, বগুড়া জেলা সহকারি খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো: মনিরুল হক, কারিগরি খাদ্য পরিদর্শক মো: মাহবুবুল হক, সারিয়াকান্দি থানা পুলিশসহ উপজেলা প্রশাসনের একাধিক কর্মকর্তা। গুদাম পরিদর্শন কালে মাত্র ৬ বস্তা চাল দেখতে পারেন কর্মকর্তারা। ফলে গুদামটিতে থাকা ১১২৪ বস্তা চাল এখন উধাও হয়েছে । যার ওজন ৩৩ হাজার ৭২০ কেজি এবং এর আনুমানিক মূল্য ১১ লাখ ৮০ হাজার ২০০ টাকা । পরে গুদামটি আবারো সিলগালা করে দেওয়া হয়।

সারিয়াকান্দি থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) আশরাফুল আলম জানান, সিলগালা করা গুদাম থেকে চালের বস্তা উধাওয়ের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় নিতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। মামলাটিতে চুরির অভিযোগ করা হয়েছে। অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়েছে।

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক দেওয়ান আতিকুর রহমান জানান, গুদামে ১ হাজার ১৩০ বস্তা চালসহ গুদাম সিলগালা করা হয়েছিল। বৃহম্পতিবার বিকালে গুদামের সিলগালা খুলে মাত্র ৬ বস্তা চাল পাওয়া গেছে। এঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সারিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রেজাউল করিম জানান, এ বিষয়ে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক দেওয়ান আতিকুর রহমান বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলাটিতে চাল চুরির অভিযোগ করা হয়েছে। এখন পুলিশ তদন্ত করে সত্যটা বের করবেন। জব্দকৃত চালের গুদাম সিলগালা করার পরেও কিভাবে বিপুল পরিমাণ চাল চুরি হয়ে গেল তা নিয়ে এলাকাবাসীদের মনে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।


এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন