• শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
মহেশপুরে অমর ২১শে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন জহির রায়হান থিয়েটারের ৩০ বছর পূর্তি আলোচনা সভা, ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠিত সাপাহারে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা-অনুষ্ঠিত কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোন কর্তৃক চোরাকারবারি আটক সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে দিনব্যাপী কর্মসূচি পালন শেরপুরে চাঁদা না পেয়ে মারধর অপহরণ থানায় মামলা কাজিপুরে ৮ টি গাঁজার গাছসহ এক কারবারী গ্রেপ্তার উল্লাপাড়ার মওলানা আব্দুর রশিদ তর্কবাগিশ উচ্চ বিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কাজিপুরে সোনামুখীতে এম মনসুর আলী স্মৃতি ভলিবলের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত রায়গঞ্জের পাঙ্গাসীতে অসহায় ও দুঃস্থ পরিবারের মধ্যে চাউল বিতরন

সিরাজগঞ্জে রাতের আঁধারে পোশাক শ্রমিককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

রিপোর্টারঃ / ২৩৭ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত হয়েছেঃ সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২২

সিরাজগঞ্জ অফিস :
সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার মিরপুর মহল্লায় মো: আলম (২৪) নামে এক পোশাক শ্রমিককে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে আহত করেছে দূর্বৃত্তরা। গুরুতর অবস্থায় তাকে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার (৪ ডিসেম্বর) রাত ৯টার দিকে মিরপুর শ্রমকল্যাণ কেন্দ্রের সামনের রাস্তায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহত আলম মিরপুর বিড়ালা কুটি এলাকার মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে। হাসপাতাল থেকে আহত আলম বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শনিবার রাতে মিরপুর গ্রামের কাওসারের নেতৃত্বে ৭/৮ জন সন্ত্রাসী অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। তারা বেদম মারপিটের পর ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় আঘাত করে। পরে একটি মোটর সাইকেল ওই এলাকা দিয়ে যাবার পথে পালিয়ে যায়। আক্রমণকারীদের মধ্যে কাওসার ও মিরপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাইটগার্ড আশরাফুল ইসলামকে চিনতে পেরেছেন তিনি। একই এলাকার ইব্রাহিম হোসেন বাবু বলেন, আমরা দুজন মোটর সাইকেল নিয়ে ওই রাস্তায় যাচ্ছিলাম। সেখানে আলমকে কয়েকজন মারপিট করছিল। তাদের মধ্যে কাওসারকে আমরা চিনতে পেরেছি। আমাদের দেখে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। তিনি আরও বলেন, আলম একজন হতদরিদ্র ও এতিম ছেলে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তাকে মারপিট করা হয়েছে। এ ঘটনাটি ন্যাক্করজনক বলে মন্তব্য। স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: আরজু বলেন, আলম নামের ওই ছেলেটি অত্যন্ত ভাল। ওকে এলাকার সবাই মাছি বলে ডাকে। ছেলেটির বাবা মারা গেছে, মা অন্যের বাড়িতে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ছেলেটিকে মারপিট করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।


এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন