• রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সামাজিক কাজে অবদান রাখায় সংবর্র্ধিত হলেন কাজিপুরের সোনামুখী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজিপুরে আনোয়ারা আজাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ কাজিপুরে আনোয়ারা আজাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বগুড়ায় মাটিডালী যুব ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ শিবগঞ্জে প্রবীণ কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ সারিয়াকান্দি কুতুবপুর ইউনিয়নে হতদরিদ্রদের মাঝে চাল বিতরণ ধামরাইয়ের কালিয়াগারে জানালা ভাঙা নিয়ে তুমুল ঝগড়া ও সংঘর্ষ উপস্থাপনায় সেরা হওয়ার লড়াইয়ে বগুড়ার তামান্না খন্দকার ঈদ উপহার পেলেন কাজিপুরের ১৪শ দুস্থ পরিবার মোহাম্মদ নাসিমের জন্মদিনে কোরান শরিফ বিতরণ করলেন এমপি জয়

শিবগঞ্জে জমি দখল করে আলু রোপন, বাধা দিলে মৃত্যুর হুমকি

রিপোর্টারঃ / ২৫০ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত হয়েছেঃ শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২২

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি :
বগুড়ার শিবগঞ্জে এক প্রতিবন্ধীর জমি জোড় করে দখল করে আলু রোপন করেছে। জমির মালিক প্রতিবন্ধী বুলু বাধা দিলে তাকে মৃত্যুর হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেনপ্রতিবন্ধী বুলু ফকির। উপজেলার কিচক ইউনিয়নের মাটিয়ান গ্রামের মৃত্যু দৌলাত জামান ফকির এর ছেলে প্রতিবন্ধী বুলু ফকির এ অভিযোগ তুলেন। তার আপন ছোট ভাই আব্দুল ফকির এর বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, তার মা রহিমা বেওয়া ২০২১ সালে তাকে ৫৪নং মাটিয়ান মৌজার ৩৬৪ দাগের ০.২১০০ একর (২১ শতক) জমি লিখে দেন। তার পর থেকে বুলু ফকির ঐ জমির মালিক হিসেবে চাষাবাদ করে আসছিল। এবং গত এক সপ্তাহ আগে জমিতে সরিষা বপন করে বুলু। কিন্তু হঠাৎ করেই ২৫ নভেম্বর শুক্রবারে সকালে তার ভাই আব্দুল ফকির গুজিয়া মিলকিপুর গ্রামের সালজার মন্ডল, এর ছেলে মোজারুল, মাটিয়ান গ্রামের দুদু ফকির,মিষ্টারের স্ত্রী ফিরোজা বিবি, ছেলে মিশন,আব্দুল এর স্ত্রী হুনুফা বিবি গণ জোড় পূর্বক ঐ দাগের প্রতিবন্ধী বুলু ফকিরের জমিতে আবারো হাল চাষ দিয়ে বপন কৃত সরিষা নষ্ট করে ঐ দিনেই আলু রোপন করে। পরে বুলু ফকির শিবগঞ্জ সদর বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের নিকট এব্যাপারে একটি অভিযোগ দাখিল করে, এর প্রেক্ষিতে শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়ন বাংলাদেশ মানবাধীকারকমিশন বাদী বিবাদী উভয় পক্ষকে নোটিশের মাধ্যমে এক জায়গায় একত্রকরে উভয়ের সম্মতি ক্রমে আপোষ-মিমাংসার জন্য বসা হয়। কিন্তু বিবাদী আব্দুল ফকির এর অনুরোধ ক্রমে আগামী ১০ ডিসেম্বর আবারো বৈঠকের তারিখ নির্ধারণ করা হয়। এবং ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত জমিতে না যাওয়ার শর্তে অঙ্গীকার করে বিবাদী আব্দুল ফকির।৩ ডিসেম্বর শনিবার দুপুরে ঐ শর্ত ভঙ্গ করে ঐ জমিতে আবারো জোর করে তারা আলু সেচ দিতে থাকে। এর এক পর্যায়ে প্রতিবন্ধী বুলু ফকির সংবাদ পেয়ে ঐ জমিতে গিয়ে আলু সেচ দিতে বারন করলে, আলু সেচ বন্ধ না করে পাল্টা বুলু কে আলু সেচ দেওয়া কোদাল দিয়ে জীবন শেষ করে ফেলার হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন, জমির মালিক প্রতিবন্ধী বুলু ফকির।


এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন