• শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
মহেশপুরে অমর ২১শে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন জহির রায়হান থিয়েটারের ৩০ বছর পূর্তি আলোচনা সভা, ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠিত সাপাহারে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা-অনুষ্ঠিত কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোন কর্তৃক চোরাকারবারি আটক সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে দিনব্যাপী কর্মসূচি পালন শেরপুরে চাঁদা না পেয়ে মারধর অপহরণ থানায় মামলা কাজিপুরে ৮ টি গাঁজার গাছসহ এক কারবারী গ্রেপ্তার উল্লাপাড়ার মওলানা আব্দুর রশিদ তর্কবাগিশ উচ্চ বিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কাজিপুরে সোনামুখীতে এম মনসুর আলী স্মৃতি ভলিবলের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত রায়গঞ্জের পাঙ্গাসীতে অসহায় ও দুঃস্থ পরিবারের মধ্যে চাউল বিতরন

মসজিদের মুষ্টির চাল নিয়ে বিরোধ- বগুড়ার ধুনটে মামলার আসামিদের হামলায় সাক্ষী নিহত

রিপোর্টারঃ / ২৪৬ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত হয়েছেঃ মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২২

বগুড়া অফিস :
বগুড়ার ধুনট উপজেলায় মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর মসজিদের মুষ্টির চাল নিয়ে মারপিট মামলায় আদালতে যাবার পথে আসামিদের হামলায় আব্দুল খালেক (৬৫) নামে এক সাক্ষি নিহত হয়েছেন। সকাল ৮টার দিকে ধুনট উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের কোদলাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আব্দুল খালেক বগুড়ার ধুনট উপজেলার কোদলাপাড়া এলাকার মৃত আজাহার আলীর ছেলে। জানা গেছে, ধুনট উপজেলার কোদলাপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের কোষাধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক। প্রায় এক মাস আগে ওই মসজিদের উন্নয়নে জন্য স্থানীয়দের থেকে ১ মণ চাল উত্তোলন করে মসজিদ কমিটি। মসজিদের কোষাধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক ওই চাল বাঁকিতে বিক্রি করেন নিহত আব্দুল খালেকের ছোট ভাই আব্দুস ছাত্তারের কাছে। কিন্তু চালের টাকা পরিশোধ করতে তালবাহানা করে আব্দুস ছাত্তার। বিষয়টি নিয়ে গত ৩ নভেম্বর মসজিদের সামনে আব্দুস ছাত্তার ও মোজাম্মেল হকের মাঝে মারপিটের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আব্দুস ছাত্তার বাদি হয়ে বগুড়া আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় মোজাম্মেল হক ও তার ছেলে ফজলুল হকসহ ৭ জনকে আসামি করা হয়। এই মামলার সাক্ষি ছিলেন আব্দুল খালেক। মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর বগুড়া আদালতে হাজিরার দিন ধার্য্য ছিল। মামলার বাদি আব্দুস ছাত্তার ও তার ভাই আব্দুল খালেক সকালের দিকে আদালতের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন। পথিমধ্যে আসামিদের বাড়ির পাশের রাস্তায় পৌঁছলে বাদি আব্দুস ছাত্তার ও তার ভাই সাক্ষি আব্দুল খালেকের ওপর হামলা চালায় মামলার ১নং আসামি ফজলুল হক ও তার লোকজন। এতে আহত হন আব্দুল খালেক। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আব্দুল খালেককে মৃতু ঘোষণা করেন। এ বিষয়ে ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রবিউল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে আব্দুল খালেকের মৃতদেহ তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।


এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন