• শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৩৩ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
সামাজিক কাজে অবদান রাখায় সংবর্র্ধিত হলেন কাজিপুরের সোনামুখী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজিপুরে আনোয়ারা আজাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ কাজিপুরে আনোয়ারা আজাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বগুড়ায় মাটিডালী যুব ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ শিবগঞ্জে প্রবীণ কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ সারিয়াকান্দি কুতুবপুর ইউনিয়নে হতদরিদ্রদের মাঝে চাল বিতরণ ধামরাইয়ের কালিয়াগারে জানালা ভাঙা নিয়ে তুমুল ঝগড়া ও সংঘর্ষ উপস্থাপনায় সেরা হওয়ার লড়াইয়ে বগুড়ার তামান্না খন্দকার ঈদ উপহার পেলেন কাজিপুরের ১৪শ দুস্থ পরিবার মোহাম্মদ নাসিমের জন্মদিনে কোরান শরিফ বিতরণ করলেন এমপি জয়

সারিয়াকান্দিতে জোরপূর্বক ভাবে রোপন কৃত ধানের জমি দখলের অপচেষ্টা

রিপোর্টারঃ / ৫২ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত হয়েছেঃ মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল, ২০২৪

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে জমাজমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নুর ইসলামের রোপন কৃত ধানের জমি দখলের অপচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের কাজলা মধ্যপাড়া গ্রামে। সরে জমিনে গেলে জানা যায়, কুতুবপুর মৌজায় ৩৬১,৩৬২,৪৫৩,১৪৫২ ও ৩২৯ নম্বর দাগে মোট ৪’একর ৫২ ভাগে ১’একর ৫২ শতাংশ জমি নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। এবিষয়ে কাজলা মধ্যপাড়া গ্রামের একতার আলী মুন্সির ছেলে নুর ইসলাম বাদী হয়ে প্রতিবেশি মুনছের আলী আকন্দের ছেলে ধলু মিয়া ও তার লোকজনদের বিরুদ্ধে চন্দনবাইশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এরফলে কয়েক বার বিচার সালিশ করেন, অভিযোগের তদন্তকারী পুলিশ অফিসার এসআই শামীম আহমেদ।বিচার সালিশে কোনো সমাধান না হলে ২’এপ্রিল রোজ মঙ্গলবার সকালে কাজলা গ্রামের মুনছের আলী আকন্দের ছেলে ধলু মিয়া, খয়ার আকন্দের ছেলে তফিল, তফিলের ছেলে রুবেল, লুৎফর রহমানের ছেলে রন্জু মিয়া, ইদা আকন্দের ছেলে জহুরুল, ডাবলু,ও শুকরা গং কাঁচি, বাইঙ্গ সহ সু কৌশলে নুর ইসলামের রোপন কৃত ধানের খেত নিড়ানি দিয়ে জমি দখলের অপচেষ্টা চালায়।

এমন সংবাদ পেয়ে নুর ইসলাম মারামারির ভয়ে
জমিতে না গিয়ে আবারও জাতীয় সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন। এবং স্থানীয় সাংবাদিকদের বিষয়টি আবগত করেন। পরে সাংবাদিকদের উপস্থিতি টের পেয়ে ধলু মিয়া গং জমি থেকে বের হয়ে নিজ নিজ বাড়ীতে যাওয়ার পথে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ধলু মিয়া বলেন, নুর ইসলাম কোন সুত্রে জমি ভোগদখল করছে তার দলিল দেখালেই জমি ছেড়ে দেওয়া হবে।

এবিষয়ে নুর ইসলাম বলেন,
আমার ক্রয়কৃত জমিতে ধানের আবাদ করেছি। ধলু মিয়া ও তার লোকজন জোরপূর্বক ভাবে দখলের অপচেষ্টা চালাচ্ছেন। আমি তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবো।
চন্দনবাইশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই শামীম আহমেদ বলেন, লিখত অভিযোগ পাওয়ার পরে কয়েক দফা সালিসি বৈঠক করা হয়েছে। এর সমাধান না হওয়া পর্যন্ত যদি কোনো ব্যক্তি আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটায় তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
এ/হ


এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন