• রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সামাজিক কাজে অবদান রাখায় সংবর্র্ধিত হলেন কাজিপুরের সোনামুখী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজিপুরে আনোয়ারা আজাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ কাজিপুরে আনোয়ারা আজাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বগুড়ায় মাটিডালী যুব ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ শিবগঞ্জে প্রবীণ কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ সারিয়াকান্দি কুতুবপুর ইউনিয়নে হতদরিদ্রদের মাঝে চাল বিতরণ ধামরাইয়ের কালিয়াগারে জানালা ভাঙা নিয়ে তুমুল ঝগড়া ও সংঘর্ষ উপস্থাপনায় সেরা হওয়ার লড়াইয়ে বগুড়ার তামান্না খন্দকার ঈদ উপহার পেলেন কাজিপুরের ১৪শ দুস্থ পরিবার মোহাম্মদ নাসিমের জন্মদিনে কোরান শরিফ বিতরণ করলেন এমপি জয়

শেরপুরে চাঁদা না পেয়ে মারধর অপহরণ থানায় মামলা

রিপোর্টারঃ / ২৬ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত হয়েছেঃ বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

ইফতেখার আলম, শেরপুর(বগুড়া)প্রতিনিধি
বগুড়ার শেরপুরের খোট্টাপাড়া গ্রামে তুচ্ছ ঘটনায় চাঁদা না পেয়ে মারধর ও বাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় বিএনপি নেতা ও মাদক ব্যবসায়ী মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক সহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে ২১ ফেব্রæয়ারী বুধবার রাতে ঘুটু বটতলা এলাকা থেকে ভুক্তভোগী হযরত আলী (৫৫) ও ইব্রাহিম (৪০) কে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে পুলিশ খবর পেয়ে তাদের সিংড়া উপজেলা সুকাশ এলাকা থেকে উদ্ধার করে এবং অপহরণ চক্রের সদস্য আবু সাঈদ কে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় শেরপুর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।
জানা যায়, উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের মাকড়খোলা গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে ইউনিয়ন বিএনপির সহ সভাপতি ও চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক একই ইউনিয়নের খোট্টাপাড়া গ্রামের মৃত হোসেন আলীর ছেলে হযরত আলী, ইব্রাহীম ও ইউনুস আলীর কাছে মেয়েকে শাসন করার অপরাধে ১ লাখ চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় ২১ ফেব্রæয়ারী বুধবার রাত ৮ টার দিকে মোস্তাকের গড়ে তোলা সন্ত্রাসী বাহিনী তাদের মারধর ও পানির লাইন, মিটার বক্স ও বারান্দার খুটি ভাংচুর করে। এ ঘটনায় শেরপুর থানায় ভুক্তভোগীরা অভিযোগ দিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে রাত ১১ টার দিকে শাহবন্দেগী ইউনিয়নের ঘুটু বটতলা এলাকা থেকে হযরত আলী ও ইব্রাহীম হোসেন কে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে আরেক ভাই ইউনুস আলী থানায় এসে পুলিশ কে খবর দিলে থানা পুলিশের এসআই রবিউল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার সুকাশ ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রাম থেকে তাদের উদ্ধার করে এবং অপহরণ চক্রের সদস্য শেরপুর উপজেলার তালতা গ্রামের মৃত নিজাম উদ্দিনের ছেলে আবু সাঈদকে উচরং খেলার মাঠ থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় ২২ ফেব্রæয়ারী ইউনুস আলী বাদি হয়ে মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক সহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে শেরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
এ ব্যাপারে মাকড়খোলা গ্রামের সচেতন মহল জানান, মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক পেশিশক্তির বলে এই এলাকায় সন্ত্রাস, মাদক কারবার সহ নানা অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। এখনি তার লাগাম টানা না হলে সে আরও বেপরোয়া হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তার ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পায়না।
এ ব্যাপারে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রেজাউল করিম রেজা বলেন, এ ঘটনায় অভিযান চালিয়ে একজন আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকিদের আটকের চেষ্টা চলছে।
এ/হ


এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন