• বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
ফুলবাড়ীতে মা আমেনা বালিকা কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের কুরআনের সবক প্রদান দুপচাঁচিয়ায় নাশকতা মামলার বিএনপির কর্মী সহ বিভিন্ন মামলায় ৯ জন আটক গাইবান্ধা-৪ আসনে লাখো মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন নৌকার প্রার্থী অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ সিরাজগঞ্জের মহাসড়কে মধ্যরাতে পিকআপে আগুন বগুড়ায় স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন বগুড়ায় ট্যাপেন্টাডলসহ গ্রেফতার ১ বগুড়ায় ঝোপগাড়ী উদয়ন সংঘের উদ্যোগে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ও ডায়াবেটিস পরীক্ষা সারিয়াকান্দি মডেল প্রেস ক্লাবের সভাপতি জাহাঙ্গীর সম্পাদক সাহাদত সিরাজগঞ্জ-১ আসনে নৌকার প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা কাজিপুরে চার হাজার কৃষক পেলেন প্রণোদনার ধানবীজ ও সার

নামাজই সফলতার উপায়

ধর্ম ডেস্ক: / ৩১৫ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত হয়েছেঃ সোমবার, ১০ অক্টোবর, ২০২২

নামাজ মুমিনের মিরাজ। নামাজেই আল্লাহর দিদার পাওয়া যায়। জীবনে সাফলতা পেতে নামাজের ভূমিকা অনেক বেশি। এই নামাজের মাধ্যমেই বান্দা তাঁর প্রভুর একান্ত সান্নিধ্য লাভ করে। প্রভুর সান্নিধ্য পাওয়াই জীবনের সবচেয়ে বড় সফলতা। এ কারণেই মহান আল্লাহ বান্দাকে নামাজের মাধ্যমে তার কাছে সাহায্য চাইতে এভাবে আহ্বান করেছেন। আল্লাহ তাআলা বলেন-

وَ اسۡتَعِیۡنُوۡا بِالصَّبۡرِ وَ الصَّلٰوۃِ

‘তোমরা নামাজ ও সবরের মাধ্যমে আমার কাছে সাহায্য চাও।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ৪৫)

অন্যত্র আল্লাহ তাআলা আরও ঘোষণা করেছেন-

وَ اَقِمِ الصَّلٰوۃَ ؕ اِنَّ الصَّلٰوۃَ تَنۡهٰی عَنِ الۡفَحۡشَآءِ وَ الۡمُنۡکَرِ ؕ وَ لَذِکۡرُ اللّٰهِ اَکۡبَرُ ؕ وَ اللّٰهُ یَعۡلَمُ مَا تَصۡنَعُوۡنَ

‘নামাজ কায়েম করুন। নিশ্চয়ই নামাজ অন্যায় অসুন্দর ও অশ্লীল কাজ থেকে বিরত রাখে। আর আল্লাহর স্মরণই তো সর্বশ্রেষ্ঠ। আল্লাহ তাআলা জানেন যা তোমরা করো।’ (সুরা আনকাবুত : আয়াত ৪৫)

আপাত দৃষ্টিতে দেখা যায়, আয়াতে নবিজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে সম্বোধন করা হয়েছে কিন্তু বাস্তবে সব মুসলিমদেরই উদ্দেশ্য করা হয়েছে। এতে দুটি অংশ আছে, কোরআন তেলাওয়াত ও নামাজ কায়েম করা। কারণ এ দুটি জিনিসই মুমিনকে এমন সুগঠিত চরিত্র ও উন্নতর যোগ্যতার অধিকারী করে; যার সাহায্যে সে বাতিলের প্রবল বন্যা এবং দুস্কৃতির ভয়াবহ ঝঞ্ঝার মোকাবিলায় সঠিক পথে থাকতে পারে।

কোরআনের এ বক্তব্য প্রথমত মানুষের দুনিয়ার জীবনের সাফল্য পাওয়ার জন্যই নাজিল হয়েছে। আর যে দুনিয়ার জীবনে সফল, সে আখিরাতে বিশাল জিন্দেগিতেও হবে সফল। তাই মানুষ দুনিয়ার জীবনে সাফল্য লাভ করতে হলে, নামাজের মাধ্যমেই তার সান্নিধ্যে আসা সম্ভব।

আল্লাহ তাআলার সান্নিধ্যে উপস্থিতি, তার স্মরণে বিভোর ও তন্ময় থাকা, তাঁর প্রতিটি হুকুম পালনে শপথ গ্রহণ করা, তাঁর প্রতি বিনয় ও নম্রতা প্রকাশ করা, তার রহমত লাভে ধন্য হওয়া, অন্তরে প্রশান্তি লাভ করা, সকল প্রকার অশান্তি, অন্যায়-অনাচার থেকে আত্মরাক্ষা করতে সাহায্য চাওয়ার একমাত্র উপায় হচ্ছে নামাজ।

সুতরাং যারা দুনিয়ার জীবনে নামাজের মাধ্যমে উক্ত বিষয়গুলো অর্জন করতে সামথ্য হবে; তার জন্য পরকালীন জীবন হবে সুন্দর, সাফল্যমণ্ডিত ও সার্থক। আল্লাহ তাআলার নির্দেশ পালনার্থে নামাজ পড়ে দুনিয়ার জীবনে শান্তি ও পরকালের সাফল্য লাভই হবে প্রত্যেক মুসলমানের ঈমানি দায়িত্ব ও কর্তব্য।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে নামাজের মাধ্যমে জীবন সংগ্রামে সাফল্য লাভ করার তাওফিক দান করুন। আমাদেরকে নামাজি ব্যক্তি হিসেবে কবুল করুন। আমিন।


এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন