• রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সামাজিক কাজে অবদান রাখায় সংবর্র্ধিত হলেন কাজিপুরের সোনামুখী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজিপুরে আনোয়ারা আজাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ কাজিপুরে আনোয়ারা আজাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বগুড়ায় মাটিডালী যুব ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ শিবগঞ্জে প্রবীণ কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ সারিয়াকান্দি কুতুবপুর ইউনিয়নে হতদরিদ্রদের মাঝে চাল বিতরণ ধামরাইয়ের কালিয়াগারে জানালা ভাঙা নিয়ে তুমুল ঝগড়া ও সংঘর্ষ উপস্থাপনায় সেরা হওয়ার লড়াইয়ে বগুড়ার তামান্না খন্দকার ঈদ উপহার পেলেন কাজিপুরের ১৪শ দুস্থ পরিবার মোহাম্মদ নাসিমের জন্মদিনে কোরান শরিফ বিতরণ করলেন এমপি জয়

বোতলে পাওয়া গেল ১৩৫ বছরের পুরোনা চিঠি- যা লেখা ছিলো

রিপোর্টারঃ / ৫০৯ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত হয়েছেঃ সোমবার, ২১ নভেম্বর, ২০২২

১৩৫ বছর আগের একটি চিঠি পাওয়া গেছে স্কটল্যান্ডের রাজধানী এডিনবরার মর্নিংসাইড এলাকার একটি বাড়িতে । গত সোমবার বাড়িটির মেঝের নিচ থেকে বোতলবন্দি চিঠিটি উদ্ধার করা হয়।

ওই বাড়িতে পানির পাইপ মেরামতে যান পিটার অ্যালান (৫০) নামের এক মিস্ত্রি। মেঝের একটি অংশ কাটার এক পর্যায়ে ভিক্টোরিয়া আমলের ক্যাপসুল আকৃতির হুইস্কির বোতলটি আবিষ্কার করেন তিনি।

বাড়ির মালিক আইলিদ স্টিম্পসনকে বিষয়টি জানান পিটার। চিঠি পড়তে হাতুড়ি দিয়ে বোতলটি ভাঙতে হয় আইলিদকে।

মিস্ত্রি অ্যালান বলেন, বোতলটি যেখানে ছিল ঠিক সে স্থানটি কাটতে পারা সৌভাগ্যের বিষয়। কক্ষটি ১০ বাই ১৫ ফুটের। বোতলটির অবস্থান সম্পর্কে না জেনেই ঠিক এর চারপাশে কাটতে থাকি। এটি অবিশ্বাস্য।

অ্যালান আরো বলেন, বাড়িটি প্রথম নির্মাণের সময় গৃহকর্মীর জন্য নির্ধারিত যে কক্ষ ছিল, সেখান থেকেই বোতলটি উদ্ধার করা হয়।

বর্তমানে স্বামী ও দুই সন্তান নিয়ে এই বাড়িতে থাকেন আইলিদ স্টিম্পসন। চিঠিতে দুই পুরুষ শ্রমিকের স্বাক্ষর ও তারিখ লেখা। এতে লেখা আছে, জেমস রিচি ও জন গ্রিভ এই মেঝে নির্মাণ করেছেন। কিন্তু তাঁরা হুইস্কি পান করেননি। তারিখটা ১৮৮৭ সালের অক্টোবর ৬। যদি কখনো কেউ এই বোতলটি পান, তাহলে ভাবতে পারেন আমাদের ধুলো রাস্তার পাশে উড়ছে।

বাড়ির মালিক আইলিদ বলেন, ১৩৫ বছর পুরনো বোতলটি ভাঙার সময় ভয় পেয়েছিলাম। কিন্তু বোতল ভাঙা ছাড়া চিঠিটি পড়ার কোনো উপায় ছিল না। বোতলের ভাঙা টুকরাগুলো সংরক্ষণ করে রেখেছি।

আইলিদকে চিঠিটি সংরক্ষণের পরামর্শ দিয়েছেন স্কটল্যান্ড জাতীয় পাঠাগারের একজন তত্ত্বাবধায়ক।
সূত্র : বিবিসি

এ/মনি


এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন